ভূমধ্যসাগর থেকে বাংলাদেশিসহ ১৭৮ অভিবাসী উদ্ধার

তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী বাংলাদেশি নাগরিকসহ ১৭৮ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। তারা লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা করছিল।

তিউনিসিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তিউনিসিয়ার দক্ষিণ উপকূলের অদূরে তিনটি অভিযান চালিয়ে তারা দুটি মৃতদেহ এবং ১৭৮ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করেন।

উদ্ধার হওয়া ওই অভিবাসীরা মিসর, তিউনিসিয়া, সিরিয়া, আইভেরিকোস্ট, বাংলাদেশ, নাইজেরিয়া, মালি ও ইথিওপিয়ার নাগরিক। তারা শুক্র ও শনিবার রাতে লিবিয়ার জুবারা বন্দর থেকে যাত্রা শুরু করে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা জানায়, বৃহস্পতিবার তিউনিসিয়া কর্তৃপক্ষ দুইশো ৬৭ জনকে আটক করে, যারা লিবিয়া থেকে সাগর পাড়ি দিতে শুরু করেছিল । তাদের বেশির ভাগই বাংলাদেশি।

প্রসঙ্গত, তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড মে ও জুন মাসে পাঁচ দফায় ভূমধ্যসাগর থেকে ৭০৭ জন বাংলাদেশিকে উদ্ধার করে। তাদের সবাই এখন আফ্রিকার দেশটিতে অবস্থান করছেন।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের পহেলা জানুয়ারি থেকে ২১ জুন পর্যন্ত ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে বিভিন্ন দেশের ১৯ হাজার ৬১ জন ইতালি পৌঁছেছেন। এই ছয় মাসে ১২ হাজার ৪৪০ জন অভিবাসী অবৈধভাবে ইতালি পৌঁছাতে লিবিয়া থেকে যাত্রা করেছিলেন। লিবিয়া থেকে ইতালি পৌঁছানো নাগরিকদের তালিকার শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। এই সময়ে বাংলাদেশের দুই হাজার ৬০৮ জন এ সময় ইউরোপের দেশটিতে পৌঁছেছেন। এ বছরের পহেলা জানুয়ারি থেকে ২১ জুন পর্যন্ত অবৈধভাবে ইউরোপ যাত্রার সময় কমপক্ষে ৮১০ জন অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছে।

নৈতিক সংবাদ/এমবিবি